বক্সিং খেলার নিয়ম । বক্সিং খেলার গুরুত্ব

বক্সিং খেলার নিয়ম

বক্সিং খেলার নিয়ম । বক্সিং খেলার গুরুত্ব ।

 

 

ইদানিং খেলাধুলা‌ শরীরচর্চার পাশাপাশি প্রতিভা বিকাশ এবং ইনকামের বড় একটি সোর্চে পরিণত হয়েছে । খেলাধুলার জনপ্রিয়তা এখন বিশ্বজুড়ে । জনপ্রিয় অসংখ্য খেলার মাঝে একটি হলো‌ বক্সিং ।

আজ এখানে বক্সিং খেলার নিয়ম কানুন সংক্রান্ত জরুরী পয়েন্ট উল্লেখ করা হবে । তাই পুরো লেখাটি পড়ে আহ্বান রইলো ।

 

 

বক্সিং খেলার পরিচয় :

 

বাংলা অভিধানে বক্সিং খেলার পরিচয় লেখা হয়েছে,

ঘুসোঘুসির লড়াই বা প্রতিযোগিতা। হ্যাঁ বক্সিং খেলা আসলে একটি প্রতিযোগিতা । এটাকেই অন্য ভাবে বলা হয় বক্সিং মার্শাল আর্ট যুদ্ধ খেলা ।

জনসম্মুখে নির্দিষ্ট সময় ধরে দুই ব্যক্তির গ্লাভস, হেলমেট এবং মাউথ পিস পরে পরস্পরের দিকে মুষ্টি নিক্ষেপ করাকেই বক্সিং খেলা বলে ।

বক্সিং খেলার অন্যান্য নাম- ইংলিশ বক্সিং, মুষ্টিযুদ্ধ, ওয়েস্টার্ন বক্সিং, সুইট সায়েন্স ইত্যাদি।

বক্সিং খেলার নিয়ম

 

বক্সিং খেলার প্রকারভেদ:

 

বক্সিং খেলার নানান প্রকার বা স্তর হতে পারে । তার মাঝে তিনটি প্রধান । ১. অপেশাদার বক্সিং ২. পেশাদার বক্সিং ৩. প্রফেশনাল বক্সিং ।

 

 

অপেশাদার বক্সিং:

 

অপেশাদার বক্সিং একটি অলিম্পিক এবং কমনওয়েলথ খেলা এবং এটি একটি প্রধান আন্তর্জাতিক গেম । এই গেমের নিজস্ব বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ রয়েছে। বক্সিং এক থেকে তিন মিনিট চক্রের অন্তর একটি ধারাবাহিক খেলা । যেটি একজন রেফারি এবং পাঁচজন জাজের তত্ত্বাবধানে খেলা হয় ।

এই খেলার ফলাফল নির্ধারিত হয় যখন রেফারি কোন প্রতিপক্ষকে অসমর্থক গণ্য করে । আর রেফারি তখনই এটি অসমর্থ বলে গণ্য করে যখন নিয়ম ভঙ্গ করা হয় । তখন তোয়ালে নিক্ষেপ দ্বারা পদত্যাগ অথবা প্রতিযোগিতার শেষে বিচারক স্কোরকার্ড ভিত্তি করে বিজয়ী ঘোষণা করেন ।

 

পেশাদার বক্সিং:

 

পেশাদার বক্সিং সারা দুনিয়াব্যাপী খেলাধুলার সর্বাধিক জনপ্রিয় একটি রূপ । অধিকাংশ বক্সার‌ জীবনের প্রথম অংশে অপেশাদার হয়ে কাজ করে । তারপরে অলিম্পিকে অংশগ্রহণ, দক্ষতার বিকাশ ঘটানো হলে পেশাদার বক্সার হয়ে ওঠে। তাই কথা জোর দিয়ে বলা যায় অপেশাদার কিংবা অন্যান্য যোগ্যতা পেশাদার কেরিয়ারের প্রস্তুতির অভিজ্ঞতা অর্জন হিসেবে কাজ করে ।

 

প্রফেশনাল বক্সিং:

পশ্চিমা সহ বহির্বিশ্বের বক্সাররা সাধারণত একটি অলিম্পিকে অংশ নেয় এবং তারপরে নিজেকে প্রফেশনাল বক্সার হিসেবে সমাজে প্রতিষ্ঠা করে ।

পেশাদার বাউটগুলো সাধারণত অপেশাদার বাউটসের চেয়ে অনেক বেশি দীর্ঘ হয় । সাধারণত ১০ থেকে ১২ রাউন্ড পর্যন্ত ।

আর ৪ রাউন্ডে লড়াইগুলো সাধারণ কম অভিজ্ঞ বক্সার বা ক্লাব বক্সারদের জন্য । বক্সিং অপেশাদার, পেশাদার এবং প্রফেশনাল যাই হোক না কেন সবগুলো খেলার নিয়ম প্রায় একই রকম । যদিও বিভিন্ন দেশে আলাদা কিছু নিয়ম কানুন আছে ।

 

 

সংক্ষেপে বক্সিং বিধিনিষেধ:

 

বক্সিং খেলার জন্য বিভিন্ন বিধি নিষেধ থাকলেও প্রধানগুলো হলো- প্রতিপক্ষকে নির্ধারিত পয়েন্টে আঘাত করতে হয়। এতে স্কোর পয়েন্ট বাড়ে ।

প্রতিযোগিতাটি তিন থেকে পাঁচ মিনিটের রাউন্ডে বিভক্ত হয় ।‌ নিয়ম অনুসারে প্রতিটি রাউন্ডের মধ্যে বিশ্রাম নিতে হয় । কোচের পরামর্শ শোনার জন্য এবং পানি পানের জন্য তাদের ৬০ সেকেন্ড সময় দেওয়া হয়।

লড়াই যেকোনো সময় শেষ হতে পারে ।‌ যদি কোন বাউথের অংশগ্রহণকারী পড়ে যায় এবং ১০ সেকেন্ডের মধ্যে উঠতে না পারে তবে খেলাটি বিবেচনা করা হবে।

কখনো প্রতিপক্ষকে বেল্টের নিচে আঘাত করা ,তাকে জোর করে ধরে রাখা যাবে না । এটা নিষিদ্ধ । দ্বিতীয় বক্সারকে কামড় বা ধাক্কা দেওয়া অন্য কোন খেলোয়াড়কে থুতু দেওয়াও নিয়মের বিরুদ্ধে।

বিপদজনক মাথা চলাচল, বেল্টের নিচে আঘাত করা, কোন ব্যক্তিকে পিছনে এবং অভ্যন্তরীণ অঙ্গগুলিতে বিশেষভাবে কিডনিতে আঘাত করা যাবে না। মাথার পিছনে আঘাত করা নিষেধ । শরীরে অস্ত্র ধরা নিষেধ । শত্রুর মাথা বা সরঞ্জাম ক্যাপচারের কাজগুলিও নিষিদ্ধ । খোলা গ্লাভস দিয়ে আঘাত করা নিষেধ । নিজের পক্ষের দড়ি দখল করা যায় কিন্তু সেই দড়ি প্রতিপক্ষকে আঘাত করতে ব্যবহার করা যাবে না ইত্যাদি ‌।

বক্সিং এর বিধি নিষেধ

 

বক্সিং রিং মাত্রা এবং নির্মাণ

 

আদর্শ খেলোয়াড়দের জন্য বক্সিং রিং এর পরিমাপ জানাটা উচিত। তাছাড়া আয়োজক এবং সচেতন পাঠকদের জন্য ও দরকারি। তাই এবার বক্সিং রিং মাত্রা পরিমাপ সম্পর্কে একটা ধারণা দেওয়া হচ্ছে।

ক্রীড়া ইভেন্টগুলির জন্য রিংয়ের আকারটি আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলির সমস্ত প্রয়োজনীয়তা মেটাতে হবে । যুদ্ধের ক্ষেত্রটি বর্গক্ষেত্র । সাইটের ঘেরের চারপাশে অবশ্যই দড়ি থাকতে হবে । রিংয়ের পাশটি ১,৯–৬,১ মিটার । আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট গুলি অবশ্যই কমপক্ষে ৬,১ মিটারের একটি অংশের সাথে রিংয়ে অনুষ্ঠিত হতে হবে ।

প্লাটফরমের উচ্চতা ৯১ সেমি থেকে বেস বা মেঝে থেকে ১,২২ মিটার পর্যন্ত নয় । বক্সিং রিং অবশ্যই খেলোয়াড়দের জন্য নিরাপদ জায়গায় হতে হবে । মেঝেটি অবশ্যই স্তর এবং নিরবিচ্ছিন্ন হতে হবে । প্রতিটি কোণে যার্ক ইন্সটল করা হয় । কোন বক্সারকে সাহায্য করার জন্য তার কাছে যাওয়ার সময় কোনে থাকা লোকেরা আহত হওয়া উচিত নয় । স্টান্ট গুলি অবশ্যই কোন সুরক্ষিত বালিশ দ্বারা করা উচিত। অন্যথায় রিংয়ের প্রয়োজনীয়তা পূরণ করা সম্ভব হবে না ।

 

বক্সিংয়ের জন্য ওজন বিভাগ:

 

গেমটি বিশেষ নিয়ম অনুসারে সংঘটিত এবং খেলা হয় । বিভিন্ন ওজন বিভাগের লোকেরা রিংটিতে প্রবেশ করতে পারে না । পেশাদার ক্রীড়া ১৭ টি বিভাগ আছে ।

একজন বক্সারের ন্যূনতম শরীরের ওজন ৪৭,৬ কেজি হতে হবে। তারপরে ওজন ৪৮ ,৯ কেজি। পর্যায়ক্রমে ৫০,৪ কেজি ,৫২,১ কেজি হতে হবে। হালকা ওজন ৫৩,৫ কেজি থেকে শুরু হয় । তারপরে দ্বিতীয় হাল্কা ওজন প্লেয়ারের দেহের ওজন ৫৫,২ কেজি হয় ।

সৌখিন বক্সিং দশটি বিভাগ আছে । সুপার ভারী শরীরের ওজন ৯১ কেজি থেকে৮১ থেকে ৯১ কেজি পর্যন্ত ভারী বিবেচনা করা হয় হালকা ভারী শরীরের ওজন ৬৯–৭৫ কেজি। হালকা থেকে মাঝারি পার্থক্যটি প্রায় ২০ কেজি । প্রতিযোগিতামূলক অংশগ্রহণকারী সর্বনিম্ন ওজন ৪৫ কেজি হতে হবে ।

মূল কথা এক শ্রেণীর মুষ্টিযোদ্ধাদের বিপক্ষে অন্য শ্রেণীর সাথে লড়তে দেওয়া হয় না ।

 

 

বক্সিং রেফারি

 

বক্সিং খেলার রেফারি একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি । রেফারি প্যানেল অবশ্যই যেকোনো আউট এবং প্রতিযোগিতা উপস্থিত থাকতে হবে । প্রধান বিচারকের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার, প্রযুক্তিগত সমস্যা গুলির সমাধান করার এবং সমস্ত নিয়ম তাদের অনুসরণ করার করা হয় তার নিশ্চিত করার ক্ষমতা রয়েছে । পক্ষের বিচারকদের অবশ্যই লড়াইয়ের পথ অনুসরণ করতে হবে । সেখানে তিন থেকে চারজন থাকতে পারে । এটি নির্ভর করে প্রতিযোগিতার উপর । অনুমোদিত ব্যক্তিরা অ্যাথলিটদের ক্রীড়া প্রতিবেক্ষণ করে এবং লড়াইয়ের ফলাফল সিদ্ধান্তকেও প্রভাবিত করতে সক্ষম ।

 

সাইটগুলিতে এমন বিচারক থাকতে হবে যারা অ্যাথলিটরা রিংয়ে প্রবেশের আগে নিয়মগুলি অনুসরণ করে কিনা তার পর্যবেক্ষণ করে । তারা ওজন পরিমিত পরিমাপ সহ চেকগুলি বহন করে । আদালতে অ্যাথলেটদের খোঁজখবর রাখা দায়িত্ব রেফারীকে দেওয়া হয় । তিনি টুর্নামেন্টের অংশগ্রহণকারীদের কমান্ডটা দেন । নিয়ম লংঘনের ক্ষেত্রে তাদের থামিয়ে দেন । বক্সিং পেশাদার কিংবা অপেশাদার হতে পারে । তবে নিয়মগুলি প্রতিটি ধরনের জন্য প্রায় একই ।

 

রেফারি নিয়মিত রিং থাকে । তিনি খেলোয়াড়দের ক্রিয়া মনোযোগ সহকারে দেখেন । বিজয়ী হলো সেই ব্যক্তি যিনি তার প্রতিপক্ষকে আঘাত করেছিলেন, যদি প্রতিপক্ষ পড়ে যায় এবং নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে উঠতে না পারে তবে রেফারি লড়াই থামিয়ে দেয় এবং এবং বিজয়টি চ্যাম্পিয়ন কে দেওয়া হয় যিনি প্রতিপক্ষকে ছিটকে যান ।

লড়াইয়ের সময় বিচারকরা খেলোয়াড়দের খেলাও ভালো করে দেখেন ।প্রতিটি কার্যকর ক্রিয়াটির জন্য বক্সার পয়েন্টগুলি পান । ক্রীড়াবিদদের মধ্যে একটির জন্য একটি ড্র বা একটি জয় বিচারকরা ঘোষণা করতে পারেন । প্রতিযোগিতাটি একটি বিশেষ রিং এবং গ্লাভসহ অনুষ্ঠিত হতে হবে । তাদের ওজন ২৮০ গ্রাম পর্যন্ত হয় । এগুলি প্রয়োজনীয় যাতে শরীর এবং মাথার ওপর আঘাত এলে আঘাতের মতো না হয় ।

পেশাদার ,অপেশাদার এবং প্রফেশনাল বক্সারদের অবশ্যই হেলমেট পড়তে হবে । সামনের দাঁতগুলি জন্য সুরক্ষা ও গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় ।

 

 

বক্সিং খেলার সরঞ্জাম

 

অপেশাদার বক্সারদের জন্য একটা জার্সি এবং শর্টস প্রয়োজন । পেশাদার যোদ্ধারা বাইরের পোশাক ছাড়াই রিংটিতে প্রবেশ করতে পারে । অফিসিয়াল টুর্নামেন্ট অ্যাথলিট কে অবশ্যই লাল বা নীল রঙের ইউনিফর্ম পড়তে হয় । একটি স্ট্রিট শর্টস এবং শার্ট থাকা উচিত । প্রতিপক্ষের বেল্টের নিচে বক্সারকে আঘাত করা থেকে বিরত রাখতে এটি হেল্প করে থাকে । ইত্যাদি আরও টুকিটাকি কিছু জিনিসের প্রয়োজন ।

 

মেয়েদের বক্সিং লড়াই  খেলার নিয়ম

 

পুরুষরা বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে বক্সিং খেলে থাকে । এবং তাদের নিয়ম কানুন প্রায় এক রকম হলেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে পার্থক্য আছে । স্টুডেন্ট , অপেশাদার, পেশাদার, প্রফেশনাল বলে একটি কথা আছে। ‌তদ্রূপ ভাবে নারীদের বক্সিং খেলার মধ্যেও নিয়ম পুরুষদের মতই । হালকা কয়েকটি পয়েন্ট ব্যতীত ।‌ ওপরে উল্লেখিত বিধি নিষেধগুলো পড়ুন । ওগুলি হচ্ছে বক্সিং খেলার জন্য প্রধানত রীতিনীতি । অবশিষ্ট নিয়ম-কানুনের বিষয়গুলো বক্সিং খেলা শুরু করলে কোচ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়।

আরো পড়ুন –

হকি খেলার নিয়ম 

ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট নিয়মাবলী

বিশ্বের সেরা ১০ ফুটবলারের তালিকা

খেলাধুলা নিয়ে বক্তব্য

শেষকথাঃ

প্রিয় বন্ধুরা এতক্ষন বক্সিং খেলার নিয়ম নিয়ে  বিস্তারিত আলোচনা করা হলো । আশা করি বক্সিং খেলা নিয়ে আর কোন প্রশ্ন আপনাদের মনে নেই । তারপরও যদি বক্সিং খেলা নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকে । আমাদের জানাতে পারেন । আমরা চেষ্টা করবো অপনাদের সমাধান দেবার । তো আজকের মত এখানেই শেষ করছি । দেখা হবে আবারো  ভিন্ন কোন টপিকে । ততক্ষন পর্যন্ত ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন । স্পোর্টস আওয়ারের সাথেই থাকুন ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *